এবার সুরেশ রায়নার ডাকে অক্সিজেন নিয়ে গেল সোনুর টিম

সংবাদদাতা
সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১২:৪৮, মে 0৭ ২0২১ |
Print
ফাইল ছবি
বিনোদন ডেস্ক:

করোনা রোগীর তথ্য দিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটার সুরেশ রায়না টুইটারে লেখেন, একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার দরকার। উত্তরে সোনু সুদ বলেন, ‘মাত্র ১০ মিনিটের মধ্যেই অক্সিজেন সিলিন্ডার সঠিক স্থানে পৌঁছে যাবে।’

এভাবেই করোনা মহামারির শুরু থেকে রোগীর সেবায় নিয়োজিত রয়েছে সোনু সুদ এবং তার টিম।


এর আগে মঙ্গলবার (৪ মে) রাতে সোনু সুদের টিমের কাছে এক ইন্সপেক্টরের ফোন আসে। তিনি জানান, ব্যাঙ্গালুরুর আরাক হাসপাতালে অক্সিজেন সঙ্কট দেখা দিয়েছে। অক্সিজেনের অভাবে ইতোমধ্যে দুজন করোনা রোগী মারা গেছেন। খবর পেয়ে সোনুর টিম দ্রুত ১৫টি অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা করে। ফলে প্রাণ বেঁচে যান ২২ জন করোনা রোগী।

সোনু সুদ বলেন, ‘এই কঠিন পরিস্থিতিতে দেশবাসীর সহায়তার জন্য আমি ও আমার টিম সব সময় প্রস্তুত। ইন্সপেক্টর সত্য নারায়ণের কাছ থেকে ফোন পাওয়া মাত্রই আমার টিম খবরটি যাচাই করে নেয়। তারপর যত দ্রুত সম্ভব সাহায্যে লেগে পড়ে। সারারাত ধরে তারা ছোটাছুটি করেছে। হাসপাতালের জন্য অক্সিজেন সিলিন্ডার জোগাড় করেছে। সামান্য দেরি হয়ে গেলে হয়তো বহু পরিবার তাদের প্রিয়জনকে হারিয়ে ফেলত।’

তিনি আরও বলেন, ‘গত রাতে যারা সাহায্যের জন্য এগিয়ে এসেছেন তাদের প্রত্যেককে আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমার টিমের প্রতিটা সদস্য যেভাবে সাহায্যের জন্য এগিয়ে এসেছেন, তাতে আমি ভীষণ খুশি। এভাবেই তারা পাশে থাকলে ভবিষ্যতে আরও বহু মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারব। বহু মানুষের প্রাণ বাঁচবে’।

ব্যাঙ্গালুরুর আরাক হাসপাতালে অক্সিজেন সঙ্কটের খবরে সোনুর টিমের পাশাপাশি সাহায্যের জন্য পুলিশও এগিয়ে এসেছিল। ওই হাসপাতাল থেকে এক রোগীকে অন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য অ্যাম্বুলেন্স পাওয়া যাচ্ছিল না। সেই মুহূর্তে পুলিশ তাদের গাড়িতে করে ওই রোগীকে হাসপাতাল পৌঁছে দেয়।


মহামারি মোকাবিলায় সোনু সুদ সবসময় সাধারণ মানুষের পাশে আছেন। গঠন করেছেন একটি দাতব্য সংস্থা, যারা প্রতিনিয়ত সাধারণ মানুষকে সাহায্য করে আসছে। সম্প্রতি মানুষকে করোনা ভ্যাকসিন নেয়ার জন্য অনুপ্রাণিত করতে সোনু ও তার টিম একটি উদ্যোগ নেয়। ‘সঞ্জীবনী- অ্যা শর্ট অব লাইফ’ নামে একটি অভিযান চালাচ্ছে তারা, যা মানুষকে টিকা নেয়ার বিষয়ে সচেতন করবে।



জনতারকণ্ঠ//এলএইচ//

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - janoterkontho@gmail.com or মতিঝিল অফিসঃ খান ম্যানশন, ১০৭ মতিঝিল, ঢাকা-১০০০

আপনার মতামত লিখুন :