বাংলাদেশি শ্রমিকের চোখের জাদুতে ঘায়েল সোশ্যাল মিডিয়া

সংবাদদাতা
সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ১১:0৩, মার্চ ২৭ ২0১৯ |
Print
ফাইল ছবি


নিউজ ডেস্ক,জনতার কন্ঠ:

সোশ্যাল মিডিয়া এক আজব জায়গা। এটা কখন যে কোন মানুষকে বিখ্যাত করে তা বোঝা সত্যিই মুশকিল। এবার মালয়েশিয়ায় কর্মরত এই বাংলাদেশি যুবুকের একটি সাধারণ পোর্ট্রেটই তাকে করে তুলেছে অসামান্য। ছবিটি এখন বিশ্বব্যাপী সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। এর কারণ জানতে হলে আপনাকে একটু পিছনে যেতে হবে।

এই বাংলাদেশি যুবক মালয়েশিয়ায় একজন নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। তবে তার হালকা রঙের চোখের মণি আর আবেদন মাখা চেহারায় আকৃষ্ট হন আবেদেন মাং নামের এক মালেশিয়ান ফটোগ্রাফার। তিনি গত ২১ মার্চ ওই নির্মাণকর্মীর পোট্রেট তুলে টুইটারে পোস্ট করে দেন।

এরপর রাতারাতি বিখ্যাত হন বাংলাদশের ওই শ্রমিক। তার তীক্ষ্ণ চাহনিতে মজেছে সোশ্যাল মিডিয়া, তার রূপালি চোখের জাদুতে ঘায়েল নেটিজেনরা। ইতিমধ্যেই ছবিটি প্রায় ৬৯ হাজার লাইক পেয়েছে ৷ রিটুইট হয়েছে প্রায় ২৫ হাজারেরও বেশি সময় ৷

তবে, ভাইরাল হয়ে যাওয়া ওই বাংলাদেশি শ্রমিকের পরিচয় এখনও জানা যায়নি। ছবিটির চিত্রগ্রাহক আবেদেন মাং জানিয়েছন, তিনি সেই নির্মাণকর্মীর ছবিটি তুলেছিলেন মালয়েশিয়ার জালান আইপোহ এলাকার কাছে একটি নির্মীয়মান বহুতল থেকে।

নিজের তোলা ওই শ্রমিকের ছবি ভাইরাল হওয়ায় খুব খুশি আবেদেন মাং। পরে এ নিয়ে ট্যুইট করে জানান, প্রথমবার সেই শ্রমিককে দেখে ছবি তুলতে চাইলেও কোনো সুযোগ পাননি তিনি। কেননা তখন খুব লজ্জা পাচ্ছিলেন ওই বাংলাদেশি যুবক। লজ্জা পেয়ে সরে গিয়েছিলেন তিনি। তবে গত ২১ মার্চ সকালে সেই এলাকায় আবার গেলে ফের তার দেখা পান মাং। তখন আর সুযোগটি হাতছাড়া করেননি তিনি। তখন দ্রুত আইফোনে ছবিটি তুলে ফেলেন মাং।

ছবিতে ওই যুবকের তাকানো এবং তার চেহারার চিত্তাকর্ষক নানা বৈশিষ্ট্য অসামান্য এক আবেদন তৈরি করেছে। ক্যামেরার দিকে সোজা তাকিয়ে আছেন ওই ব্যক্তি।

এ সম্পর্কে ফটোগ্রাফার আবেদেন মাং আরো বলেন, ‘তিনি (বাংলাদেশি যুবক) খুবই লাজুক এক ব্যক্তি। উনি জানতেনও না কোথায় তাকাতে হবে, সম্ভবত ফোন ছিল বলেই বুঝতে পারেননি। আমি অনেকবার ক্যামেরার দিকে তাকাতে বলি। কিন্তু তিনি ঠিকমত তাকাতে পারছিলেন না। ফলে অনেকগুলো শট নষ্ট হয়। অনেকবারের চেষ্টায় তিনি ক্যামেরা বরাবর তাকালেন। ঠিক তখনই আমি ছবিটা তুললাম। কী সুন্দরই না দেখতে তিনি!’

সূত্র: এনডিটিভি

এমআর/এল
বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - janoterkontho@gmail.com or মতিঝিল অফিসঃ খান ম্যানশন, ১০৭ মতিঝিল, ঢাকা-১০০০

আপনার মতামত লিখুন :