আগামীকাল সকাল ১০টা পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত

সংবাদদাতা
সংবাদদাতা
প্রকাশিত: 0৪:৫৬, মার্চ ২0 ২0১৯ |
Print
ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক,জনতার কন্ঠ:

বিইউপির ছাত্র আবরার আহম্মেদ চৌধুরী বাস চাপায়া নিহতের ঘটনায় আগমীকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা সড়ক পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের আন্দোলন স্থগিত করা হয়েছে।

সড়ক নিরাপদ আন্দলোনের নেতা শাহরিয়ার বিইউপির শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে আজকের মতো অবরোধ কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণা দেন তিনি।

এর আগে বুধবার সকালে বিইউপি শিক্ষার্থী আবরার আহাম্মেদ চৌধুরী নিহতের ঘটনায় দ্বিতীয় দিনের মতো রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার গেটে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করে শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলরত শিক্ষার্থীদের বোঝাতে বুধবার দুপুরে ঘটনাস্থলে যান ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। সেখানে নিহত শিক্ষার্থী আবরার আহাম্মেদ চৌধুরী স্মরণে তার নামে ফুটওভার ব্রিজের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করেন তিনি। সে সময় সঙ্গে ছিলেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া, বিইউপি ভিসি জেনারেল বারি।

ফুটওভার ব্রিজের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপনের পরে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে মেয়র বলেন, তোমাদের দাবিগুলোর একটি বাস্তবায়নের জন্য ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করা হলো। দ্রুততম সময়ের মধ্যে এটা বাস্তবায়ন করা হবে।

কিন্তু আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা এক সঙ্গে বলে ওঠেন, দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালবে। কোনো আশ্বাস আমরা আর শুনতে চাই না। আমাদের দাবি বাস্তবায়ন হয়েছে এমন দেখতে চাই। যখন আমাদের দাবি পূরণ হবে তখন আমরা আন্দোলন ছেড়ে শ্রেণিকক্ষে ফিরে যাবো।

এসময় শিক্ষার্থী ‘বিচার চাই’, ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’, ‘আমাদের দাবি মানতে হবে’ স্লোগান দিতে থাকে।

এদিকে বুধবার বিকেল ৪টার দিকে রাজধানীর শাহবাগে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র-সংসদের এজিএস ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন।

এ সময় তিনি বলেন, প্রয়োজনে গাড়ির কাগজপত্র ও চালকের লাইসেন্স চেক করার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় চেকপোস্ট বসানো যেতে পারে।

এর আগে মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাজধানীর বসুন্ধরা গেট এলাকায় সু-প্রভাত বাসের চাপায় বিইউপির শিক্ষার্থী আবরার আহাম্মেদ চৌধুরী নিহত হন। তিনি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আরিফের বড় ছেলে।

আবরার আহাম্মেদ নিহত হওয়ার ঘটনায় সকাল থেকে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করেন তার সহপাঠীসহ বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করায় প্রগতি সরণিতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এমআর/এল

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - janoterkontho@gmail.com or মতিঝিল অফিসঃ খান ম্যানশন, ১০৭ মতিঝিল, ঢাকা-১০০০

আপনার মতামত লিখুন :